গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করলেন বাংলাদেশি শেফ অলি খান

গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করলেন বাংলাদেশি শেফ অলি খান

প্রবাসীর গল্প সফলতার গল্প

লন্ডনের রেস্তোঁরাগুলির অন্যতম জনপ্রিয় খাবার হল ওনিয়ন বা পেঁয়াজ ভাজি। পেঁয়াজ ভাজি ব্রিটিশ রেস্তোঁরাগুলিতে বা মূল খাবারের সাথে খাবারের শুরুতে স্টার্টার হিসাবে খাওয়া হয়। এক একটি পেঁয়াজ ভাজি সাধারণত ১০০ গ্রামের মধ্যেই তৈরি করা হয়। তবে ব্রিটিশ বাংলাদেশি খ্যাতনামা শেফ অলি খান ১৭৫ কেজি ওজনের পেঁয়াজ ভাজি করে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস তৈরি করেছেন। মঙ্গলবার, ৪ ফেব্রুয়ারি, তিনি লন্ডন মুসলিম সেন্টারের গ্রাউন্ড ফ্লোর-সংলগ্ন রান্নাঘরে ২৫ জন দক্ষ শেফের সাহায্যে দীর্ঘ ৮ ঘন্টা প্রচেষ্টায় এই বিশাল আকৃতির পেঁয়াজ ভাজি করে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করলেন বাংলাদেশি শেফ অলি খান ।

বাংলাদেশের মানুষের কাছে পেঁয়াজ ভাজি মানে পেঁয়াজের বড়া বা পেয়াজু, তবে বাংলাদেশের বাইরের পেঁয়াজ ভাজি কিছুটা আলাদা। পেঁয়াজ ভালো করে কেটে, নুন ও বেসন দিয়ে মাখিয়ে, হালকা করে ডিম ফেটে দিয়ে এবং কাঁচা মরিচ ছিটিয়ে দিয়ে তেলে ভাজা হয়। এই বৃত্তাকার খাবারের নাম পেয়াজ ভাজি যার ওজন হয় সাধারনত ১০০ থেকে ১৫০ গ্রাম। যা দেখতে একটি সমুচা বা সিঙ্গারার সমান। তবে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস এ নিজের নাম লেখাতে ব্রিটিশ-বাংলাদেশি খ্যাতনামা শেফ অলি খান ১৭৫ কেজি ওজনের বিশাল একটি পেঁয়াজ ভাজি করেছেন।

২০১১ সালে, ব্র্যাকফোর্ড কলেজের একদল শিক্ষার্থী এবং প্রাসাদ রেস্তোঁরা কর্মচারীদের একটি যৌথ প্রয়াসে ১০২ কেজি ভাজা পেঁয়াজ ভাজি করে কলিন বার্ট নামে এক ব্যক্তি বিশ্ব রেকর্ড গড়েছিলেন। আর এবার ব্রিটিশ বাংলাদেশি শেফ অলি খান ১৭৫ কেজি পেঁয়াজ ভাজি করে সেই রেকর্ডটি ভেঙে দিলেন। সেই পেঁয়াজ ভাজি তৈরির সময় গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ ক্যাটারার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রাক্তন সেক্রেটারি জেনারেল অলি খান ২০১৬ সালে প্রথমবার এই পেঁয়াজ ভাজির রেকর্ড ভাঙার উদ্যোগ নিয়েছিলেন। তবে সে বছর তিনি ব্যর্থ হলেও দ্বিতীয় প্রচেষ্টাতে তিনি সফল হন এবং তার সমস্ত কৃতিত্ব তাঁর পুরো দলকে দিয়েছিলেন। অলি খান মনে করেন, কারী শিল্পের বর্তমান এই সঙ্কট মুহুর্তে তার এই অর্জন এই শিল্পের সমস্যা দূর করতে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করবে।

পূর্ব লন্ডনের বাংলাদেশী সম্প্রদায়ের মানুষদের এবং স্থানীয় গৃহহীনদের মাঝে রান্না শেষে বিশ্বের এই বৃহত্তম পেঁয়াজ ভাজা বিতরণ করা হয়। গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ড থেকে প্রাপ্ত অর্থ পূর্ব লন্ডন মসজিদ চ্যারিটি ট্রাস্টকে দান করা হবে বলে ঘোষণা করেন গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করলেন বাংলাদেশি শেফ অলি খান ।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *